বাংলাদেশ বনাম শ্রীলঙ্কা – হেড টু হেড, টিম প্রিভিউ এবং পূর্বাভাস

বাংলাদেশ বনাম শ্রীলঙ্কা

বিশ্বকাপের খেলা শুরু হয়েছে সম্প্রতি। ইতিমধ্যে বিশ্বকাপের বেশ কয়েকটি ম্যাচ মাঠে গড়িয়েছে। শনিবার নিজেদের প্রথম ম্যাচে মাঠে বাংলাদেশ নামতে চলেছে শ্রীলঙ্কার বিপরীতে। আজকের নিবন্ধে বাংলাদেশ বনাম শ্রীলঙ্কা এর বর্তমান প্রস্তুতি এবং দল, ফর্ম, হেড টু হেড পরিসংখ্যান বিশ্লেষণ এবং ভবিষ্যদ্বাণী নিয়েই থাকছে বিস্তারিত।

চলমান বিশ্বকাপে অংশ নেওয়া দলের সংখ্যা ২০, যেখানে ৪টি করে গ্রুপ রয়েছে। আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ২০২৪ টুর্নামেন্টে গ্রুপ ডি তে থাকা দল শ্রীলঙ্কা এবং বাংলাদেশ। যেখানে আরও তিনটি দল হিসেবে রয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা, নেদারল্যান্ডস এবং নেপাল। আগামী ৮ জুন তারিখে হতে যাচ্ছে গ্রুপ ডি এর বাংলাদেশ বনাম শ্রীলঙ্কার ম্যাচ। বাংলাদেশ এবং শ্রীলঙ্কার মধ্যকার এই ম্যাচটি শুরু হতে যাচ্ছে বাংলাদেশ সময় সকাল ৬.৩০ মিনিটে।

ঐতিহাসিক হেড টু হেড বিশ্লেষণ বাংলাদেশ বনাম শ্রীলঙ্কা

বাংলাদেশ বনাম শ্রীলঙ্কার ম্যাচ দুটি দেশের দর্শকদের নিকট একটি দেখার মত গেম। দুটি দলের মধ্যকার ম্যাচে টানটান উত্তেজনা অনুভব করে দর্শকরা।

এই পর্যায়ে দুটি দলের হেড টু হেড পরিসংখ্যান দেখে বোঝার চেষ্টা করব কোন দল বিশ্বকাপে এগিয়ে রয়েছে।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ইতিপূর্বে বাংলাদেশ এবং শ্রীলঙ্কা মুখোমুখি হয় কেবল ২টি ম্যাচে, যেখানে শ্রীলঙ্কা ২টি ম্যাচেই বাংলাদেশের বিপক্ষে জয় ছিনিয়ে নিতে সক্ষম হয়।

তবে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে দুটি দেশের মধ্যকার আয়োজিত টি-টোয়েন্টি সিরিজে তারা মুখোমুখি হয় ১৬টি ম্যাচে।

যেখানে শ্রীলঙ্কা ১১টি ম্যাচে জয় পায় এবং বাংলাদেশ জয় পায় ৫টি ম্যাচে।

সুতরাং বিগত টি-টোয়েন্টি পরিসংখ্যান অনুযায়ী শ্রীলংকা বাংলাদেশের তুলনায় এগিয়ে রয়েছে।

এছাড়াও শেষ ৫ ম্যাচে শ্রীলঙ্কা ৪টিতেই জয় পেয়েছে।

সাম্প্রতিক ফর্ম এবং কর্মক্ষমতা

দুটি দলের মধ্যকার লড়াইতে ভবিষ্যৎবাণী করার ক্ষেত্রে উভয়ের সাম্প্রতিক ফর্ম এবং কর্মক্ষমতা বিশ্লেষণ করার বিকল্প নেই। এই পর্যায়ে আমরা দেখার চেষ্টা করবো সাম্প্রতিক ফর্ম এবং কর্মক্ষমতা বিবেচনায় কোন দল এগিয়ে আছে চলমান বিশ্বকাপে।

শ্রীলঙ্কা এর সাম্প্রতিক ফর্ম দুর্দান্ত বলেই বিবেচনা করা হয়ে আসছিল।

তবে বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচেই দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে বাজে ভাবে হারে শ্রীলঙ্কা।

ম্যাচের প্রথম ইনিংসে কেবল ৭৭ রান এর টার্গেট দেয় শ্রীলঙ্কা।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে ২২ বল হাতে রেখে ৬ উইকেটে ম্যাচ জিতে নেয় দক্ষিণ আফ্রিকা।

দক্ষিণ আফ্রিকার পূর্বে আয়ারল্যান্ডকে হারিয়েছে শ্রীলঙ্কা। তবে তারও পূর্বে লেডারল্যান্ডস এর কাছে হারতে হয় শ্রীলঙ্কাকে।

অন্যদিকে বাংলাদেশের বর্তমান ফর্ম আশানরূপ নয়। প্রস্তুতি পর্বে যুক্তরাষ্ট্রের কাছে পরপর ২টি ম্যাচে হেরে লজ্জার মুখোমুখি হয় বাংলাদেশ। দ্বিতীয় ম্যাচে ভারতের বিপক্ষেও হারতে হয় বাংলাদেশকে।

এছাড়াও ইতিপূর্বে শ্রীলঙ্কার কাছে ২-১ ব্যবধানে টি টোয়েন্টি সিরিজ হারে বাংলাদেশ।

সুতরাং সাম্প্রতিক ফর্ম বিবেচনায় দুটি দলের পারফরম্যান্স আশানরূপ নয়।

তবে দুটি দলের সম্ভবনার দিক থেকে কিছুটা হলেও এগিয়ে শ্রীলঙ্কা।

টিম প্রিভিউ: বাংলাদেশ

বেশ কিছুদিন আগেই বাংলাদেশ দলের বিশ্বকাপ স্কোয়াড ঘোষণা করা হয়েছে।

তবুও বাংলাদেশ দলের স্কোয়াড এক নজরে রিভিউ করা যাক।

নাজমুল হোসেন শান্ত (অধিনায়ক), তাসকিন আহমেদ, লিটন দাস, সৌম্য সরকার, তানজিদ হাসান তামিম, সাকিব আল হাসান, তাওহিদ হৃদয়, মাহমুদ উল্লাহ রিয়াদ, জাকের আলী অনিক, তানভীর ইসলাম, শেখ মাহেদী হাসান, রিশাদ হোসেন, মুস্তাফিজুর রহমান, শরিফুল ইসলাম। , তানজিম হাসান সাকিব।

ট্রাভেল রিজার্ভ: আফিফ হোসেন, হাসান মাহমুদ

বিশ্বকাপের বাছাই পর্বে ভারতের বিপক্ষের ম্যাচে আঘাতপ্রাপ্ত হোন শরিফুল ইসলাম।

এই তাই পরবর্তী ম্যাচ থেকে শরিফুলকে পাওয়া নিয়ে রয়েছে দুশ্চিন্তা।

টিম প্রিভিউ: শ্রীলঙ্কা

বিশ্বকাপ উপলক্ষে বেশ কিছুদিন আগেই শ্রীলঙ্কা দলের স্কোয়াড প্রকাশ করা হয়।

নিচে শ্রীলঙ্কা দলের স্কোয়াড রিভিউ করা হলো এক নজরে।

ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা (অধিনায়ক), চরিথ আসালাঙ্কা, কুসল মেন্ডিস, পথুম নিসাঙ্কা, কামিন্দু মেন্ডিস, সাদিরা সামারাউইক্রমা, অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস, দাসুন শানাকা, ধনঞ্জয়া ডি সিলভা, মহেশ থেকশানা, দুনিথ ওয়েললাগে, দুশমন্থে থমেরা, নুশমানা থমেরা, মাহিশ থেক্সানা মধুশঙ্কা।

ট্রাভেল রিজার্ভ: অসিথা ফার্নান্দো, বিজয়কান্ত ভিয়াস্কান্ত, ভানুকা রাজাপাকসে, জেনিথ লিয়ানাগে।

দেখার মত খেলা – বাংলাদেশ বনাম শ্রীলঙ্কা

বিশ্বকাপে শ্রীলঙ্কা বনাম বাংলাদেশের খেলায় দর্শকদের মাঝে এক আলাদা উত্তেজনার সৃষ্টি করে খেলার মাঠে। এশিয়া কাপ কিংবা বিশ্বকাপ দুটি জায়গায় বেশ কয়েকবার মুখোমুখি হয় এই দুই দল। আর তাই দুটি দলের মধ্যে রয়েছে নানান কন্ট্রোভার্সি।

বাংলাদেশ বনাম শ্রীলঙ্কার ম্যাচে সবচেয়ে বড় কন্ট্রোভার্সি দেখা গিয়েছিল অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস এর টাইম আউটকে কেন্দ্র করে।

সবশেষ টি-টোয়েন্টি সিরিজে বাংলাদেশকে ২-১ ব্যবধানে হারিয়ে ট্রফি অর্জন অনুষ্ঠানে টাইম আউট সেলিব্রেশন করেছিলেন ম্যাথিউস এবং তার সতীর্থরা। যদিও পরবর্তী ওডিআই সিরিজে তার পাল্টা জবাব হিসেবে সিরিজ জিতে একইভাবে সেলিব্রেশন করেন মুশফিকুর রহমান এবং পুরো দল।

২ মাসের ব্যবধানে বিশ্বকাপের ময়দানে আবারও মুখোমুখি হতে চলেছে এই দুই দল।

আর তাই দুটি দলের মধ্যকার লড়াই থাকবে দেখার মতোই। ৮ জুন একটি মহাযুদ্ধ দেখার অপেক্ষায় ভক্তরা।

পিচ এবং আবহাওয়ার অবস্থা

বাংলাদেশ বনাম শ্রীলঙ্কার এই ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে যুক্তরাষ্ট্রের গ্র্যান্ড প্রেইরি স্টেডিয়ামে।

যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস শহরে অবস্থিত এই পিচকে পারফেক্ট বেটিং পিচ হিসেবেই গণ্য করা হয়।

অন্যদিকে বাংলাদেশ বনাম শ্রীলঙ্কার ম্যাচে আবহাওয়া পরিস্থিতি কিছুটা উষ্ণ।

ওয়েদার ফরকাস্ট অনুযায়ী উক্ত দিন ৩০° এর বেশি তাপমাত্রা থাকতে পারে। বৃষ্টির সম্ভবনা নেই।

ম্যাচের পূর্বাভাস

একটি ম্যাচের পূর্বাভাস বলতে উক্ত ম্যাচের সম্ভাব্য জয়ী দলের ভবিষ্যদ্বাণী করাকে বোঝানো হয়। বিভিন্ন ক্রিকেট বিশেষজ্ঞদের প্রতিবেদন এবং বিগত পরিসংখ্যান অনুযায়ী বিশ্লেষণ করলে দেখা যায় বাংলাদেশের তুলনায় কিছুটা হলেও এগিয়ে রয়েছে শ্রীলঙ্কা।

আর তাই সাম্প্রতিক বিবেচনায় শ্রীলঙ্কা হতে পারে এই ম্যাচের জয়ী দল।

এক্ষেত্রে ৬০% সম্ভবনা রয়েছে শ্রীলঙ্কার পক্ষে এবং ৪০% সম্ভবনা রয়েছে বাংলাদেশের পক্ষে।

বাংলাদেশ বনাম শ্রীলঙ্কা – কিভাবে দেখবেন?

বাংলাদেশ বনাম শ্রীলঙ্কার ম্যাচ শুরু হবে বাংলাদেশ সময় সকাল ৬.৩০ মিনিটে।

উক্ত ম্যাচটি বাংলাদেশ থেকে সরাসরি দেখতে পারবেন স্টার স্পোর্টস চ্যানেলের মাধ্যমে।

এছাড়াও বাংলাদেশ থেকে টফি অ্যাপের মাধ্যমে বিশ্বকাপের খেলা উপভোগ করতে পারবেন।

উপসংহার

আজকের নিবন্ধে বাংলাদেশ বনাম শ্রীলঙ্কা এর ম্যাচের বিগত পারফরম্যান্স এবং ভবিষ্যৎ পারফরম্যান্সের প্রেডিকশন করা হয়েছে।

আপনার মতামত অনুযায়ী কে বিজয়ী হবে এই ম্যাচে সেটি আমাদের মন্তব্য করে জানিয়ে দিন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *